Select Page

“সম্ভাবনার স্বপ্নযাত্রা” বইটির লেখক জনাব কাজী হাসান রবিন। তিনি বর্তমানে ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এর কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক, গুগল ডেভেলপার গ্রুপ (জিডিজি) বাংলা এর উপদেষ্টা এবং ইয়ুথ এম্পাওয়ারমেন্ট ফোরাম এর প্রতিষ্ঠাতা। “সম্ভাবনার স্বপ্নযাত্রা” ছায়াবীথি প্রকাশনী থেকে অমর একুশে বই মেলা ফেব্রুয়ারি ২০১৯ এ প্রকাশিত হয়েছে। বইটিতে রয়েছে ৮০টি পৃষ্ঠা। যার শুভেচ্ছা মূল্য ১৬০ টাকা এবং বিক্রয় মূল্য ১২০ টাকা। শুরুতেই বলে দিচ্ছি বইটি শুধুমাত্র ইউনিভার্সিটি ছাত্রছাত্রীদের জন্য ভার্সিটি লাইফকে গুছিয়ে নেওয়ার জন্য পথ নির্দেশিকা। সাথে রয়েছে দেশি এবং বিদেশী লেখকদের দেশ ও বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয়তা পাওয়া বিভিন্ন বই পড়ে জ্ঞান আহরণ করার আহ্বান। এবার আসি বই সম্পর্কে আমার ব্যক্তিগত মতামত নিয়ে।

বইটিতে ইউনিভার্সিটি এর ৪টি বছরকে ১২টি অধ্যায়ে সাজানো হয়েছে। প্রতিটি অধ্যায় ৪ মাস করে সময় নিয়েছে। আর এই সময়কে সাজানোর পদ্ধতিটি যে কেউ নিঃসন্ধেহে গ্রহণ করবে। সাধারণত ছাত্রছাত্রীরা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি যুদ্ধে যাই ফলাফল করুক না কেন, তারা কিন্তু কোন না কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হচ্ছে। কেউ পাবলিকে, কেউ প্রাইভেটে, কেউ ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে, কেউ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হচ্ছে। কিন্তু ঘুরে ফিরে একটাই পথ। বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪টি বছর তাকে পাড় করতেই হবে। কেউ ঢাকায় পড়ছে, কেউ ঢাকার বাহিরে অন্য কোন শহরে পড়ছে আর কেউবা গ্রামে পড়ছে। শিক্ষার্থীরা শুরুতেই এই জায়গায় হোঁচট খায় যে আমি ঢাকা শহর বা ভাল কোনো শহরে পড়তে পারলাম না। ঠিক তারপরের হোঁচটটি হল- ঢাকায় পড়া স্বত্ত্বেও ভাল কোনো ইউনিভার্সিটিতে চান্স পেলাম না। আবার ভাল ইউনিভার্সিটিতে চান্স পেলেও ভাল সাবজেক্টে চান্স না পাওয়া নিয়েও কিন্তু হোঁচট খাচ্ছে। আমি এখানে ৩টি প্রাথমিক হোঁচটের কথা উল্লেখ করেছি। আপাতত ধরে নিচ্ছি এই ৩টি হোঁচটই শিক্ষার্থীদেরকে ভার্সিটি লাইফের শুরুতেই তাদের স্বপ্নগুলোকে দুমড়ে মুচড়ে গুঁড়িয়ে ফেলার জন্য যথেষ্ঠ। আর ঠিক এই কারণেই হয়ত প্রচুর সংখ্যক শিক্ষার্থীরা তাদের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে না।

সম্ভাবনার স্বপ্নযাত্রা অটোগ্রাফ

শিক্ষার্থীদের এই হতাশা থেকে উঠে আসতে হলে হতাশা কাটাতে হবে। আর কিভাবে এই হতাশা কাটিয়ে ১২টি ধাপ সম্পন্ন করার মাধ্যমে ইউনিভার্সিটি লাইফে অন্য দশজন থেকে নিজেকে আলাদা করে তুলে ধরতে হয়- তার বিস্তারিত আলোচনা / পথ প্রদর্শন করা হয়েছে। শুধু ইউনিভার্সিটি লাইফ নয়, বরং ভার্সিটি লাইফের পর ভবিষ্যতের চাকুরী লাইফ এর সফট স্কিল নিয়েও পথ দেখানো হয়েছে। আমি বিশ্বাস করি, এই বইটি পড়ার পর কেউ যদি পূর্ণাঙ্গ ১২টি ধাপ প্রয়োগ করে তাহলে তার ভার্সিটি লাইফ নিয়ে বিন্দু পরিমাণ হতাশা থাকবে না। বরং তার স্বপ্নযাত্রা সম্ভাবনাময় হয়ে উঠবে। সে হয়ে উঠবে অন্য দশজন শিক্ষার্থী থেকে একজন আইকন শিক্ষার্থী। সে হয়ে উঠবে আত্মবিশ্বাসী। তার মধ্যে যেসব এক্সট্রা কারিকুলার এক্টিভিটিজের ঘাটতি রয়েছে তা অনেকটা পরিপূর্ণ হয়ে উঠবে। ১০০% সফলতার গ্যারান্টি এই বইটিতে বলা হয়নি, বরং সফলতার রাস্তা এখানে দেখানো হয়েছে।

তাই আমি বলব আপনারা বইটি দোকান থেকে সংগ্রহ করুন কিংবা বন্ধু থেকে সংগ্রহ করুন, কিন্তু মনোযোগ দিয়ে পড়বেন। বইটি পড়তে সর্বোচ্চ ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট সময় লাগবে। ভুল হলে ক্ষমা দৃষ্টিতে দেখবেন এবং কমেন্ট করে জানাবেন। এতক্ষণ মনোযোগের সহিত ব্লগটি পরার জন্য ধন্যবাদ।

রকমারি ডট কম থেকে অনলাইন অর্ডার লিংকঃ সম্ভাবনার স্বপ্নযাত্রা

error: